0
টেট উত্তীর্ণ হলেই সুযোগ পাবে ইন্টারভিউয়ে, জানাল আদালত
টেট উত্তীর্ণ হলেই সুযোগ পাবে ইন্টারভিউয়ে, জানাল আদালত
কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বড়সড় স্বস্তি পেল টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীরা ৷ অনলাইনে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের চুড়ান্তপর্বে আবেদন করতে না পেরে বহু টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীর চাকরি পাওয়ার আশা শেষ হয়ে গিয়েছিল ৷ কিন্তু বুধবার হাইকোর্টের রায়ে পুনরুজ্জীবিত হল টেট পরীক্ষার্থীদের আশা ৷ বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় এদিন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে সমস্ত টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদেরই ইন্টারভিউতে বসার সুযোগ দিতে নির্দেশ দেন ৷ এর আগে অনলাইনে যেসব পরীক্ষার্থী আবেদন করতে সক্ষম হয়েছিলেন, শুধুমাত্র তাদেরই ইন্টারভিউতে ডাকে পর্ষদ ৷
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় পাশ করেও ইন্টারভিউয়ে সুযোগ পাচ্ছেন না বহু পরীক্ষার্থী ৷ প্রাথমিক শিক্ষকের চুড়ান্ত পর্বে অনলাইনে আবেদন করতে গিয়ে সমস্যার সম্মুখীন হন অনেকে ৷ সার্ভারে সমস্যা থাকায় বহু টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থী অনলাইনে ফর্মফিলাপ করতে পারেননি ৷ এদিকে ফর্মফিলাপের সময়সীমা শেষ হয়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েন হাজার খানেক চাকরিপ্রার্থী ৷
৭ অক্টোবর ছিল অনলাইনে ছিল আবেদনের শেষ দিন ৷ সার্ভারের সমস্যায় ফর্মফিলাপে সমস্যার সম্মুখীন হন বহু পরীক্ষার্থী ৷ কেউ কেউ আবার পরীক্ষার ফি জমা দিতে সমস্যায় পড়েন ৷ পুজোর ছুটি চলায় পর্ষদ অফিসের সাহায্য নেওয়া সম্ভব হয়নি বলে অভিযোগ জানান অনেকে ৷ কিন্তু এই দাবি উড়িয়ে দিয়ে পর্ষদের চেয়ারম্যান মাণিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি করেন, ফর্মফিলাপ চলাকালীন খোলা ছিল পর্ষদের হেল্পলাইন সেখানে কোনও অভিযোগ আসেনি ৷ তাই প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের কাছে ফর্মফিলাপের জন্য সময়সীমা বাড়ানোর আবেদন করা হলে পর্ষদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, সময়সীমার মধ্যে যারা আবেদন করেছেন তারাই শুধু ইন্টারভিউতে বসার সুযোগ পাবেন ৷
এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হন বঞ্চিত পরীক্ষার্থীরা ৷ তাদের দাবি ছিল, যোগ্যতার মাপকাঠি টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া সত্ত্বেও পরিকাঠামোর জন্য চাকরির সুযোগ থেকে অন্যায়ভাবে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা ৷ সেই মামলার শুনানিতে আদালতের নির্দেশ, সমস্ত টেট উত্তীর্ণ হলেই সমস্ত প্রার্থীদেরই সুযোগ দিতে হবে ৷
ফলে ইন্টারভিউয়ের আগেই রেসের বাইরে চলে যাওয়া পরীক্ষার্থীরা ফের সামিল প্রতিযোগিতায় ৷ প্রাথমিকে শিক্ষকের শূন্যপদের সংখ্যা ৪২,৯৪৯টি ৷
পর্ষদের পূর্ব বিজ্ঞপ্তি অনুসারে ২১ তারিখ অর্থাৎ শুক্রবার থেকেই শুরু হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের চুড়ান্ত পর্ব ৷ মোট ১৩ টি জেলায় ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া প্রায় শেষের পথে ৷ দক্ষিণ দিনাজপুরের জন্য সম্ভাব্য ইন্টারভিউয়ের ডেট দেওয়া হয়েছে ২৭ ও ২৮ অক্টোবর ৷ বীরভূমের চাকরি প্রার্থীদের ডাকা হতে পারে ২৫ থেকে ২৭ অক্টোবরের মধ্যে ৷
এছাড়া উপনির্বাচনের জন্য তিন জেলায় স্থগিত রয়েছে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া ৷
আদালতের এই নির্দেশের পর নতুন করে সুযোগ না পাওয়া পরীক্ষার্থীদের জন্য কি ব্যবস্থা নেয় পর্ষদ তা জানতে আরও কিছুদিনের অপেক্ষা ৷

Post a Comment

 
Top