0
কিংবদন্তি 'ডায়মন্ড কোচ' অমল দত্ত কে শ্রদ্ধা জানাই
প্রয়াত হলেন প্রাক্তন ফুটবলার তথা ভারতের প্রথম পেশাদার কোচ অমল দত্ত। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। জনপ্রিয় এই ফুটবল ব্যক্তিত্যের মৃত্যুতে শোকাহত গোটা ক্রীড়া দুনিয়া।
ভারতীয় ফুটবলে ডায়মন্ড সিস্টেম প্রবর্তন করে অমল দত্ত আধুনিতার ছোঁয়া দিয়েছিলেন। ভারতে আধুনিক ফুটবলের জনক বললেও ভুল বলা হবে না। দীর্ঘদিন বয়সজনিত নানা রোগভোগে ভূগছিলেন তিনি। রবিবার সকাল থেকে শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।
পরিবারসূত্রের খবর, সন্ধ্যা আটটা নাগাদ শ্বাসকষ্টের সমস্যা অত্যন্ত বেড়ে যায়। সময় নষ্ট না করে তাঁকে বেসরকারি একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ভর্তির কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
১৯৫০-এ ইস্টবেঙ্গলের মিডফিল্ডে খেলতেন অমল দত্ত। ১৯৫৪ সালে মানিলায় এশিয়ান গেমসের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন অমল দত্ত। ১৯৬৩ সালে ইস্টবেঙ্গলের কোচ হন অমলবাবু। এর একবছর পর ফুটবলের কোচিংয়ের নিজের সর্বস্বটা উজার করে দিতে ১৯৬৫ সালে নিজের রেলের পাকা চাকরি ছেড়ে দেন অমলবাবু।
ভারতের প্রথম পেশাদার কোচ ছিলেন অমল দত্ত। ইস্টবেঙ্গলের পাশাপাশি মোহনবাগানের কোচও ছিলেন তিনি। খেলার মাঠে সবসময় নতুন কিছু করার জেদ থাকত এই কোচের। ভারতের আধুনিক ফুটবলের জনক ছিলেন অমল দত্ত। অমল দত্তর প্রয়ানে শোকের ছায়া বাংলায়।

Post a Comment

 
Top