0
শারাপোভা  টেনিসে ফিরবেন না আর
                                                          শারাপোভা  টেনিসে ফিরবেন না আর                                                       ছবিঃ সংগৃহীত  
ছবিঃ সংগৃহীত
                                                                                      
ছবিঃ সংগৃহীত
সাবেক বিশ্বের এক নম্বরে থাকা টেনিস তারকা মারিয়া শারাপোভা আর কখনোই টেনিসের র‍্যাকেট হাতে নেবেন না। এমনটাই জানিয়েছেন রাশিয়ার টেনিস ফেডারেশনের প্রধান। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চলাকালে পরীক্ষায় তার রক্তে ড্রাগের উপস্থিতি পাওয়া যায়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

২০০৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে উইম্বলডন শিরোপা জিতে টেনিস বিশ্বে সোরগোল ফেলে দিয়েছিলেন মারিয়া শারাপোভা। এরপর ধীরে ধীরে উঠে এসেছিলেন টেনিস র‍্যাংঙ্কিংয়ের শীর্ষে। কিন্তু হঠাৎ করে ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে বেশ বিপাকেই পড়ে গেছেন রাশিয়ার এই লাস্যময়ী তারকা। টেনিস কোর্টে আবার তাকে দেখা যাবে কি না, তা নিয়েও জেগেছে ঘোর সংশয়। রাশিয়ার টেনিস ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শারাপোভা হয়তো আর কখনোই পা রাখতে পারবেন না টেনিস অঙ্গনে।

ড্রাগ নেওয়ার অপরাধে গেল ১২ মার্চ শারাপোভাকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করেছিল আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশন। সেসময় তিনি জানান, শারীরিক অসুস্থতার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শে ২০০৬ সাল থেকে মেলোডোনিয়াম নামের এক ধরনের ড্রাগ নিয়ে আসছিলেন। আবারও টেনিসে ফেরার দৃঢ় প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেছিলেন শারাপোভা। কিন্তু এখন তিনি ‘খুবই বাজে অবস্থায়’ আছেন বলে জানিয়েছেন রাশিয়ান টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি শামিল তার্পিশ্চেভ।

জেনেবুঝে অবৈধ ড্রাগ গ্রহণ করলে চার বছর এবং না জেনে করলে দুই বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞার বিধান আছে। তবে শারাপোভাকে ছয় মাস বা এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

Post a Comment

 
Top